Former minister Nasim dies from infection, days after stating, Hasina made Bangladesh COVID free

Journalist Anjan Roy, Anandabazar Patrika correspondent in Bangladesh, has called Mohammed Nasim a ‘legend’.

Nasim was 23 and a healthy young man when in hordes youths in Bangladesh took part in the Liberation War. But he chose to stay away from the war. We have to call him a legend or ‘Kingbadonti’, indeed.

Nasim will be remembered by people of Bangladesh for the loots and corruption in the health sector, crumbling health care system and siphoning off a massive amount of money to the US, through his son.

Nasim said, Khaleda Zia was pretending to be sick. After police beat up Sadek Hossain Khoka and left him bloodied, Nasim laughed at him and said that it was the blood of a cow.

We all know and it has been reported in the ECONOMIST and LONDON TELEGRAPH, how thousands of ordinary people are dying painfully in Bangladesh, without getting any access to medical treatment. Now Nasim has died days after issuing a statement that Bangladesh, being under the control of Sheikh Hasina, was free from the scourge of coronavirus.

He is lucky that he has died. He would have been driven to commit suicide if he recovered from his COVID infection and found how people hated him, humiliated him.

Click here to read the original Facebook post

বাংলাদেশে আনন্দবাজার পত্রিকার সাংবাদিক অঞ্জন রায় মোহম্মদ নাসিমকে “কিংবদন্তী” বলে অভিহিত করেছে।

নাসিমের ২৩ বছরের টগবগে যৌবনে মুক্তিযুদ্ধে অংশ না নেয়ার জন্য তাকে তো কিংবদন্তী বলতেই হবে!

অঞ্জন রায় যাই বলুক, নাসিমকে বাংলাদেশ মনে রাখবে স্বাস্থ্য সেক্টরের অব্যাহত লুটপাট ও দুর্নীতি, বেহাল স্বাস্থ্যব্যবস্থা ও তার সন্তানের মাধ্যমে আমেরিকায় অর্থ পাচারের জন্য।

খালেদা জিয়া অসুস্থতার ভান করছে এই কথা এবং সাদেক হোসেন খোকাকে পুলিশে মেরে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করে দিলে সেটাকে গরুর রক্ত বলে উপহাস করেছিলো এই নাসিমই।

ইকোনমিস্ট, লণ্ডন টেলিগ্রাফ লিখেছে কীভাবে হাজার হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে কষ্টকর মৃত্যু বরণ করছে বাংলাদেশে। আর এদিকে শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ করোনা মুক্ত রয়েছে বলে বাণী দেয়ার পরেই করোনাতে নাসিমের মৃত্যু হলো।

সে সৌভাগ্যবান যে মৃত্যুবরণ করেছে। বেঁচে ফিরে আসলে সারা দেশের মানুষের তার প্রতি ঘৃণা দেখলে লজ্জায় অপমানে তাকে নিশ্চিত আত্মহত্যা করতে হতো।

লেখাটির ফেইসবুক ভার্সন পড়তে চাইলে এইখানে ক্লিক করুন


Share

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Feeling social? comment with facebook here!

Subscribe to
Newsletter