The world should be more proactive about Myanmar

Reuters reporters Wa Lone and Kyaw Soe Oo have been sentenced to seven years in prison because, according to a court in Myanmar, they breached the country’s Official Secrets Act. In their sensational report these two journalists exposed how the Burmese soldiers massacred 10 Rohingya Muslim men and boys in a village in Rakhine last year. The journalists were arrested in December.

The soldiers indulged in massacre of some villagers, but the court in Myanmar came out in full support of those murderers. This is outrageous. The court and the soldiers should be identified as criminals and we have to fight to drag them to the International Court of Justice.

We salute Lone and Oo for the courage and professionalism they displayed in performing their duty as very fine journalists. The international community should be more proactive to sever all commercial and diplomatic relationships with Myanmar which has routinely been protecting the perpetrators behind the crimers against humanity.

রয়টার্সের দুই সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিয়াও সোয়ে ওউকে মায়ানমারের আদালত সাত বছরের কারাদন্ড দিয়েছে । এই দুই সাংবাদিকই মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের একটি গ্রামে ১০ জন রোহিঙ্গা পুরুষ ও কিশোরের হত্যাকাণ্ডের ঘটনা প্রথম পৃথিবীর সামনে তুলে ধরেছিলো। এই হত্যাকান্ড নিয়ে অনুসন্ধান চালানোর সময় গত ডিসেম্বরে গ্রেপ্তার হন তাঁরা। তাদের বিরুদ্ধে রাস্ট্রিয় গোপন তথ্য পাচারের অভিযোগ আনা হয়।

গণহত্যার মতো মানবতার বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধ যারা সংগঠিত করেছে তাদের বাঁচানোর জন্য মায়ানমারের আদালতের এই নক্ক্যারজনক ভূমিকা ভবিষ্যতের পৃথিবী ঘৃণার সাথে মনে রাখবে।

মায়ানমার রাস্ট্রের সরকার আদালত আর সেনাবাহিনী সকলেই এই গণহত্যার আসামী। পৃথিবীর মানুষদের দায়িত্ব এই অপরাধীদের আন্তর্জাতিক আদালতের সামনে বিচারের জন্য হাজির করা।

দণ্ডিত সাংবাদিকেরা সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে যুগে যুগে তাদের সাহসের আর আত্মত্যাগের জন্য নন্দিত হবেন। বিশ্ব সম্প্রদায়ের উচিত গণহত্যাকারী মায়ানমার রাষ্ট্রের সাথে সকল বাণিজ্যিক ও কুটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা।

Share

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Feeling social? comment with facebook here!

Subscribe to
Newsletter